ক্যান্সার থেকে রক্ষা পাওয়ার উপায়। ক্যান্সার থেকে রক্ষা পেতে যা যা করণীয়

ক্যান্সার থেকে রক্ষা পাওয়া তেমন কোন কঠিন ব্যাপার না যদি আপনি আপনার লাইফস্টাইলে বা চালচলনে কিছুটা পরিবর্তন আনতে পারেন। তবে এই জিনিস গুলো করলেই যে একেবারেই ক্যান্সার হবে না তেমন না। তবে গবেষণায় পাওয়া গেছে যে যদি আমাদের দেওয়া কাজ গুলো নিয়মিত করতে পারেন তাহলে ক্যান্সার এর ঝুকি অর্ধেকই কেটে যাবে। এবং যদি সব নিষেধাজ্ঞা গুলো এড়িয়ে চলতে পারি।

১। ক্যান্সার থেকে রক্ষা পেতে নিয়মিত ব্যায়াম করুন।

নিয়মিত ব্যায়াম করুন - ক্যান্সার থেকে রক্ষা পাওয়ার উপায় সমূহ

যখন আপনি কোন ব্যায়াম করেন, তখন কেবল নিজেকে স্বাস্থ্যকরই করছেন না বরং আপনি নিজেকে অনেক ধরনের ক্যান্সারের ঝুকি থেকে রক্ষা করছেন।  আমেরিকান ইনস্টিটিউট ফর ক্যান্সার রিসার্চ এর মতে একজন মানুষকে প্রতিদিন অন্তত ৪৫ মিনিট ধরে ব্যায়াম করা উচিত। এতে ক্যান্সারের ঝুকি অনেক টা কমে যায়।

তবে ব্যায়াম করার জন্য যে আপনাকে জিমে যেতে হবে এর কোন মানে নেই। সাপ্তাহিক বাগান করার মতো কার্যকলাপগুলোর ফলেও আপনার ফুসফুসের ক্যান্সার এর ঝুকি অনেকটা হ্রাস পাবে। প্রতিদিন বিকালে বা সকালে হাটাহাটি করা, কার্ডিওভাসকুলার, ইয়োগা করা ইত্যাদি আপনার স্বাস্থকে যেমন ভালো রাখবে তেমনি ক্যান্সার এর ঝুকি কমিয়ে আপনাকে একটি ভালো জীবন উপহার দিতে পারবে। এইগুলো করলে যে শুধু ক্যান্সার এর ঝুকি কমবে এমন না বরং এইগুলো ইতিমধ্যে অনেক ক্যান্সারে আক্রান্ত মানুষকে সুস্থ করতেও সক্ষম।

 অবশ্যই এর অর্থ এই নয় যে ওজন তোলার জন্য আপনাকে জিমে যেতে হবে।  এমনকি সপ্তাহে কয়েকবার বাগান করার মতো হালকা কার্যকলাপ ফুসফুসের ক্যান্সারের ঝুঁকি উল্লেখযোগ্যভাবে হ্রাস করে বলে জানা যায়। মাঝারি ব্যায়াম, এর বিপরীতে, কেবল আপনার কার্ডিওভাসকুলার স্বাস্থ্যের উন্নতি করবে না, তবে এটি কোলন ক্যান্সারের ঝুঁকি কমিয়ে দেবে বলে বিশ্বাস করা হয়।  40 শতাংশ হিসাবেও, খুব 3.3 এমনকি ইতিমধ্যে যাদের ক্যান্সার হয়েছে তাদের ক্ষেত্রেও ব্যায়াম পুনরাবৃত্তি প্রতিরোধে একটি বড় পার্থক্য আনতে পারে।

আরো দেখুনঃ মোবাইলের স্পীড বাড়ানোর উপায়

২। নিয়মিত ফলমূল এবং শাকসবজি খান।

শাকসবজি ফলমুল - ক্যান্সার থেকে রক্ষা পাওয়ার উপায় সমূহ

সুষম খাদ্য আমাদের শরীরের জন্য অনেক দিক দিয়ে উপকারী। সুষম খাদ্য বা ফলমূল, শাকসবজি আমাদের অনেক ধরনের রোগ যেমন ডায়াবেটিস, শরীরের দুর্বলতা ইত্যদি দূর করতে অপরিহার্য ভুমিকা পালন করে।

এইগুলোতে রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিজেন যা আমাদের শরীরের মৃত কোষগুলোকে নতুন ভাবে মেরামত করে। 

এর মধ্যে বেরি এবং ভিটামিন যুক্ত খাবার গুলো আমাদের শরীরে শক্তির পাশাপাশি ক্যান্সারের ঝুকি কমাতেও অনেক হেল্প করে।

 বেরি ছাড়াও, বুটবাগা, ফুলকপি, ব্রকলি, ইত্যাদি আমাদের শরীরে প্রয়োজন মিটিয়ে অনেক রোগের বিরুদ্ধে কাজ করে।

আরো পড়ুনঃ ইউটিউব ভিডিও র‍্যাংক করার উপায়

৩। ধুমপান করা বা ধুমপানের সংস্পর্শ এড়িতে চলুন।

ধূমপান - ক্যান্সার থেকে রক্ষা পাওয়ার উপায় সমূহ

ক্যান্সার এর ঝকি বাড়ানোর জন্য ধূমপান অন্যতম কারণ। তাই সম্পুর্ন ভাবে ধূমপান পরিহার এর পাশাপাশি যতটা সম্ভত ধূমপানের সংস্পর্শ এড়িয়ে চলতে হবে। ধূমপান কেবল ফুসফুসের ক্যান্সার না বরং অনেক রকম ক্যান্সার এর জন্য দায়ী।

ক্যান্সার এর ঝুকি কমানোর অন্যতম উপায় টি হলো ধুমপান এবং ধুমপানের সংস্পর্শ এড়িয়ে চলা।  যারা প্রতিনিয়ত ধুমপান করেন তাদের স্বাস্থ এবং একজন ধুমপান না করা মানুষের সাস্থ্যের মধ্যে হাজার গুন তফাত। ক্যান্সার এর জন্য কেবল সিগারেট ই দায়ী নয়, সিগার, হুক্কা ধুমপান সহ আরও অনেক গুলো ধুমপান  সমানভাবে  দায়ী।

এমনকি যদি আপনি কখনও ধুমপান করেন না সেটা তো ভালোই কিন্তু স্যাকেন্ড হ্যান্ড ধুমপান সাস্থের জন্য অনেক বেশী ক্ষতিকর। স্যকেন্ড হ্যান্ড ধুমপান বলতে, কেও যদি আপনার সামনে ধূমপান করে এবং তার ধোয়া আপনাকে বিরক্ত করে বা আপনার ভেতর প্রবেশ করে সেটাও ক্যান্সারের জন্য দায়ী। তাই কেও আপনার সামনে ধূমপান করলে সেখান থেকে সরে আসুন বা উনাকে ধূমপান করতে মানা করুন।

৪। এলকোহল নেওয়া/খাওয়া থেকে বিরত থাকুন।

ধূমপান - ক্যান্সার থেকে রক্ষা পাওয়ার উপায় সমূহ

শুনতে একটু অবাক লাগলেও এইটা সত্য যে এলকোহল পান করা আপনার ক্যান্সারেএ ঝুকি অনেকাংশেই বাড়িয়ে দেয়।অনেক গবেষণা থেকে পাওয়া গেছে যে পুরুষ রা যদি দিনে অল্প পরিমান বা ২ গ্লাস এলকোহল/মদ পান করে এবং একজন মহিলা যদি অল্প পরিমাণে এলকোহল/মদ পান করে তাহলে তাদের হেপাটোসেলুলার কার্সিনোমা সহ আরো কয়েক প্রকার ক্যান্সার হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়।

ডেইলি ১০গ্রাম এলকোহল পানের ফলে আপনার স্তন ক্যান্সার/Breast Cancer এর ঝুকি ৭% বেড়ে যায়।

আরো জানুনঃ ছেলেদের স্কিন কেয়ার রুটিন

তাই একটা কথা সবার আগে বলব যে আপনি যদি এইগুলা ছাড়তে অক্ষম হন তাহলে দ্রুত এইগুলা ত্যাগ করার জন্য কোন চিকিৎসকের কাছে যান এবং নিজেকে নিজে বুঝান।

ক্যান্সার থেকে রক্ষা পেতে হলে অবশ্যই আপনাকে নিজের মাইন্ডসেট করতে হবে, ঠান্ডা মাথায় সব কিছু বুঝতে হবে। নিজেকে সব প্রকার কাজ যেগুলো ক্যান্সার এর ঝুকি বাড়ায় সেগুলো থেকে সরিয়ে নিন এতে ক্যান্সার থেকে রক্ষা পাওয়া আপনার জন্য অনেক বেশী সহজ হয়ে যাবে যা আপনাকে একটি সুস্থ্য জীবন ধান করবে।

Leave a Comment